Borhan IT https://www.borhanit.com/2020/12/blog-post_44.html

আপনার এন্ড্রয়েড ব্যাকআপ করার কমপ্লিট গাইড

বর্তমান এই আধুনিক যুগে আমরা আমাদের একটা মোবাইল খুব বেশিদিন ব্যবহার করতে চাই না, নিত্যনতুন মডেল বাজারে আসতে থাকায়। আবার কখনো কখনো ব্যবহার করতে চেয়েও পারি না, কেননা হয় মোবাইলটি হারিয়ে যায় নাহয় চুরি হয়ে যায়। আর এর সাথে সাথে হারিয়ে যায় আমাদের বহু মূল্যবান ডাটা কিংবা স্মৃতিগুলো। তবে আর নয়। আজকে আমি দেখাতে চলেছি রুট ছাড়াও কিভাবে একদম সহজ ও নিরাপদভাবে আমরা আমাদের এন্ড্রয়েডের সবকিছু ব্যাকআপ করে রেখে দিতে পারি যেন ফোন হাতছাড়া হয়ে গেলেও স্মৃতিগুলো না হারায়।




গুগল একাউন্ট দিয়ে ব্যাকআপ

আপনি সহজেই আপনার ফোনের কল হিস্টোরি, ওয়াইফাই পাসওয়ার্ড, বিভিন্ন এপের স্টোর করে রাখা ফাইল, বিভিন্ন সেটিংস, ওয়ালপেপার ইত্যাদি আপনার গুগল একাউন্টে ব্যাকআপ রাখতে পারেন।

আপনাকে যা করতে হবে তা হলো, প্রবেশ করুন Settings >Backup & Reset এরপর Back up my data অপশনটি চালু করে দিন। 


এছাড়াও আমরা কন্যাক্টস, ক্রোম, ক্যালেন্ডার, গুগল ফিট, গুগল প্লে মুভি এবং টিভি,  গুগল প্লে মিউজিক ইত্যাদিও ব্যাকআপ রাখতে পারি। তারা অটোমেটিক ব্যাকাপ হবার পাশাপাশি আমরা নিজেরাও যেভাবে নিশ্চিত করতে পারি কাজটি, সেটি হলো: Settings >Accounts >Google এরপর এখানে নিজের নির্দিষ্ট একাউন্টটি সিলেক্ট করে প্রয়োজনীয় টুগেল বা বাটন যেগুলো অন করা প্রয়োজন, অন করে দিলেই নিশ্চিত থাকা সম্ভব।



গুগল ফটোস দিয়ে ব্যাকআপ

আপনার ফোনে গুগল ফটোস না থাকলে সেটা ডাউনলোড করে নেয়া উচিত কেননা এর চমৎকার সব ফিচারের পাশাপাশি এটি ইচ্ছেমতো ফটো-ভিডিও গুগল ড্রাইভে স্টোর করার সুবিধা দেয়। যদিও এখানে একটু বোঝার ব্যাপার রয়েছে। গুগল ড্রাইভে ফটোসের সব ভিডিও ও ছবি সর্বোচ্চ কোয়ালিটিতে আপলোড হয় ফলে ড্রাইভের স্পেস খুব দ্রুত ফুরোতে পারে। এক্ষেত্রে ছবির জন্য 16mp এবং ভিডিওর জন্য 1080p মেইনটেইন করা হয় তবে কিছুটা কম্প্রেস তো করা হয়ই। স্টোর করা ছবি প্রায় মেইন কপির মতোই দেখতে হয়ে থাকে, স্টোরেজ মেইন্টেনেন্স বেশ ভালো।

আপনি সিম্পলি গুগল ফটোস এপ ওপেন করুন, নেভিগেশন ড্রয়ার থেকে প্রবেশ করুন Settings >Back up & sync এ। এরপর সেখানে দেখতে পাবেন আপনার এভেইলেবল স্টোরেজ। সেখানে কোন কোয়ালিটিতে এবং কোন কোন ফোল্ডার স্টোর করবেন তা নিশ্চিত করে সহজেই প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে পারেন।



থার্ড পার্টি এপ দিয়ে ব্যাকআপ

সহজে যদি দেখতে চান, ইন্টারনেটে অনেক এপই বলে থাকে আপনার পুরো ফোন ব্যাকআপ করে দিবে, কিন্তু সব এপের কথায় আর কাজে মিল পাওয়া যায় না। তবে বেশ কয়েকটি ভালো আর সহজ এপের মধ্যে ওয়ান ড্রাইভ বা মেগার পাশাপাশি G Cloud Backup একটি। এটি আপনাকে অলমোস্ট সবই ব্যাকআপ করতে দেয় যেমন: কন্ট্যাক্টস, কল লগ, হোয়াটসএপ মেসেজ, ছবি, ভিডিও, গান, সিস্টেম সেটিংস ইত্যাদি। তো চলুন দেখে নিই এখানে কিভাবে ব্যাকআপ করতে পারেন।
১. প্রথমে প্লে স্টোর থেকে G Cloud Backup app ইনস্টল করে নিন। এরপর এখানে ফেসবুক বা গুগল একাউন্ট দিয়ে সাইনআপ সেরে নিন।


২. হয়ে গেলে এরপর একে প্রয়োজনীয় সব পারমিশন দিয়ে দিন এবং আপনি যে যে ডাটা ব্যাকআপ করতে চান সেগুলো সিলেক্ট করে Save চাপুন।



এপটিতে ফ্রি এক জিবি স্টোরেজ পাচ্ছেন তবে একটা মান্থলি সাবস্ক্রিপশন দেয়ার মাধ্যমে তা আরো বাড়ানো সম্ভব। এছাড়াও ফ্রিতে স্পেস বাড়ানো যাবে তাদের শর্তানুযায়ী ইনভাইট ও স্পন্সর্ড এপ ডাউনলোড করলে। 


এখানে বাই ডিফল্ট সেট করা থাকে যে ব্যাকাপের কাজ চার্জে লাগানো অবস্থায় বা ওয়াইফাই কানেক্টেড হলে শুরু হবে। এটা চেন্জ ও কর নিতে পারেন সেটিংস থেকে। এছাড়াও অটো ব্যাকআপ ও ফাইল ডিলেটের মতো ব্যাসিক আরো ফিচার এই এপের রয়েছে।


ছবি সংগৃহীত: Beebom.com

পিসি বা ম্যাকবুক দিয়ে ব্যাকআপ

স্টোরেজের ক্ষেত্রে বহুগুণ এগিয়ে থাকা কম্পিউটার যে ব্যাকাপের জন্য একটা ভালো অপশন, তা কে না জানে? আপনার ফোনটিকে কেবল কম্পিউটারে কানেক্ট করুন আর কপি করে করে ইচ্ছামত জায়গায় গুছিয়ে রেখে দিন গুরুত্বপূর্ণ ফাইলগুলো, একদম সহজেই ব্যাকাপের কাজ হয়ে যাবে। তবে এন্ড্রয়েডের ফাইল ম্যাকবুকে স্টোর করতে হলে ফোনে Android File Transfer এপটি ইনস্টল করতে হবে।

ব্যাকআপের মাধ্যমে আপনার ডাটা থাকুক নিরাপদ

এমন অনেককে বলতে শোনা যায় যে, "চোর আমার মোবাইলটা নিলো ভালো কথা, অন্তত মেমোরি কার্ডটা দিয়ে যেত!" অর্থাৎ, বুঝাই যাচ্ছে ফোনে থাকা বিভিন্ন ডাটা, তথ্য বা স্মৃতি আমাদের কাছে কতটা মূল্যবান। আর সেগুলো কিভাবে আমরা সবসময়ের জন্য যত্ন করে আমাদের কাছে রেখে দিতে পারি সেটারই রুটের ঝামেলাবিহীন সেরা কয়েকটি উপায় নিয়ে লিখলাম আজকের আর্টিকেল।

আশা করছি লেখাটি আপনাদের কাজে আসবে। ভালো লাগলে লেখাটি শেয়ার করে দিতে পারেন এবং আপনার মতামত জানাতে পারেন কমেন্টে। সকলের সর্বাঙ্গীন সুস্বাস্থ্য কামনা করে আজ এখানেই শেষ করছি। ধন্যবাদ। 

অন্যদের সাথে শেয়ার করুন

0 Comments

দয়া করে নীতিমালা মেনে মন্তব্য করুন ??

নটিফিকেশন ও নোটিশ এরিয়া